সিলেটের বনকলাপাড়ায় সন্ত্রাসী দের নিকট জিম্মি একটি পরিবার, আতঙ্কে নারীরা

প্রকাশিত: ৩:০৮ অপরাহ্ণ, জুলাই ৩, ২০২০

সিলেটের বনকলাপাড়ায় সন্ত্রাসী দের নিকট জিম্মি একটি পরিবার, আতঙ্কে নারীরা

 

এম আব্দুল করিম সিলেট থেকেঃ

সিলেটে দিন দিন বেপরোয়া হয়ে উঠছে নগরীর ৭নং ওয়ার্ড হাজী পাড়ার আফিয়া বেগমের দুই সন্তান ও তার মেয়ের জামাই শামীম উরফে দা শামীম, ছোট ছেলে ফেরদৌস উরফে কালা মাগুর। ছিনতাই ও অস্ত্র মামলাসহ বহু মামলার আসামী তারা। আফিয়া বেগমের মেয়ের জামাই ছাত্রদলের ক্যাডার জালালাবাদ থানার মইয়ারচর গ্রামের তজম্মুল আলীর ছেলে শামীম উরফে দা শামীম অগ্নি সংযোগ গাড়ী ভাংচুর, চুরি ও ছিনতাইসহ বহু মামলার আসামী।
তাদের সাথে যোগ দেয় মাদক সম্রাট ইমাদের বিশ্বস্ত সহযোগি হাজী পাড়ার জব্বার মিয়ার ছেলে বহু মামলার পলাতক আসামী ছাত্রদল ক্যাডার মাদকসেবী শিপন।

গত ০২-০৭-২০২০ ইং সরেজমিনে ঘটনাস্থলে গিয়ে জানা যায় যে, স্কুল, কলেজে পড়ুয়া ছাত্রী সহ নারীদের উত্যোক্ত করাই এদের কাজ। আর এর প্রতিবাদ করলেই খেতে হয় পরিকল্পিত মামলা না হয় বাড়ী ঘরে হামলা।
ডাক্তার ও মুক্তিযোদ্ধার সন্তান পরিচয়ে আফিয়া কখনও কেঁদে আবার কখনও হুমকি দিয়ে সাধারন মানুষ সহ প্রশাসন কে ব্যাবহার করে থাকেন।বাস্তবে আফিয়া বেগম অনেক কুকর্মের হুতা ও একজন এনজিওর মাঠ কর্মী। ইজ্জতের ভয়ে কেউ মুখ খুলতে চায় না।
আফিয়া বেগম তার ছেলের এমন কোন কাজ নাই পারেনা এবং করেনা।তাদের দ্বারা সবই সম্ভব।

উল্লেখ্য যে, গত ২১ জুন ২০২০ ইং সিলেট নগরীর সুবিদ বাজারের লন্ডনী রোড এলাকার বাসিন্দা মোছাঃ মনোয়ারা বেগম বাদী হয়ে এসএম পির এয়ারপোর্ট থানায় শামীম গংদের বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা দায়ের করেন। যাহার নং ২১,তাং ২১-০৬-২০২০ ইং। উক্ত মামলায় পুলিশ তাদেরকে গ্রেফতার করার জন্যে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। কিন্তু আসামীরা বাদীপক্ষকে একের পর এক হুমকি দিচ্ছে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক হাজি পাড়া এলাকার কয়েকজন বাসিন্দা এ প্রতিবেদকের কাছে জানান যে শামীম ও ফেরদৌস এর ভয়ে অনেকেই তাদের বিরুদ্ধে মুখ খুলতে চায়না। আমরা সঠিক তদন্তের মাধ্যমে তাদের এসব কুকর্মের সুষ্ঠ বিচারের দাবি জানাচ্ছি।

এই সংবাদটি 1506 বার পঠিত হয়েছে

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ