কুলিয়ারচর পৌর নির্বাচনে মেয়র পদে বিজয়ী হয়েই প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীর সাথে সৌজন্য সাক্ষাৎ করতে ছুটে যান মহসিন

প্রকাশিত: ১২:০৯ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ১৮, ২০২১

কুলিয়ারচর পৌর নির্বাচনে মেয়র পদে বিজয়ী হয়েই প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীর সাথে সৌজন্য সাক্ষাৎ করতে ছুটে যান মহসিন

 

মুহাম্মদ কাইসার হামিদ, কিশোরগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি :

দ্বিতীয় ধাপে অনুষ্ঠিত কিশোরগঞ্জের কুলিয়ারচর পৌরসভা নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়র প্রার্থী সৈয়দ হাসান সারওয়ার মহসিন নির্বাচিত হয়ে বিজয় অর্জনের পর সর্ব প্রথমেই ছুটে যান তার একমাত্র প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপি মনোনীত মেয়র প্রার্থী নূরুল মিল্লাতের সাথে সৌজন্য সাক্ষাৎ করতে ।

তিনি রবিবার (১৭ জানুয়ারি) দুপুরে পৌর এলাকার বেতিয়ারকান্দি গ্রামে বিএনপি’র কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক ও কিশোরগঞ্জ জেলা বিএনপি’র সভাপতি মো. শরীফুল আলমের গ্রামের বাড়িতে গিয়ে এ সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন।

সাক্ষাতে নির্বাচন চলাকালীন সময় ৫ নং ওয়ার্ডে কুলিয়ারচর সরকারি কলেজ কেন্দ্রে অপ্রত্যাশিত ঘটনার জন্য দুঃখ প্রকাশ করেন তিনি।

সৌজন্য সাক্ষাতকালে উপস্থিতব ছিলেন, বিএনপি’র কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক ও কিশোরগঞ্জ জেলা বিএনপি’র সভাপতি মো. শরীফুল আলম (সিআইপি), কুলিয়ারচর উপজেলা বিএনপি’র যুগ্ন-আহ্বায়ক এম এ হান্নান, উপজেলা যুব দলের আহ্বায়ক আজহার উদ্দিন লিটনসহ উপজেলা বিএনপি’র নেতৃবৃন্দ।

এ বিষয়ে সৈয়দ হাসান সারোয়ার মহসিন সাংবাদিকদের বলেন, আমি আমার নির্বাচনী অঙ্গীকারে বলেছিলাম, আমি নির্বাচিত হলে আওয়ামী লীগ ও আওয়ামী লীগের সকল নেতাকর্মী এবং আমার বিরোধী দল বিএনপি সহ সকলের সমন্বয়ে ও পরামর্শ নিয়ে কুলিয়ারচর পৌরসভাকে জনগনের পৌরসভায় রুপান্তর করার লক্ষ্যে কাজ করবো। এর ধারাবাহিকতায় আমি নির্বাচিত হয়েই প্রথমে ছুটে আসি আমার প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী আমার শ্রদ্ধেয় বড় ভাই নূরুল মিল্লাতের কাছে সৌজন্য সাক্ষাৎ করে পরামর্শ নিতে। আমি সকলের কাছে দোয়া চাই, আমি যেন আমার ওয়াদা রক্ষা করে কুলিয়ারচর পৌরসভাকে একটি আদর্শ পৌরসভায় রূপান্তর করতে পারি।

প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীর সাথে সৌজন্য সাক্ষাতের বিরল এ ঘটনার সংবাদ পেয়ে এলাকাবাসী বলছে, একেই বলে নেতা।

এই সংবাদটি 29 বার পঠিত হয়েছে

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ