বগুড়ায় পাখি শিকারের কথা বলে বাপ্পীকে হত্যা করে দুই বন্ধু ; আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি banglarbarud24.com

প্রকাশিত: ৮:২৫ পূর্বাহ্ণ, জানুয়ারি ৫, ২০২১

বগুড়ায় পাখি শিকারের কথা বলে বাপ্পীকে হত্যা করে দুই বন্ধু ; আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি banglarbarud24.com

 

শাহজাহান আলীঃ রাজশাহী বিভাগীয় প্রধানঃ

বগুড়ার শাজাহানপুরে পাখি শিকারের কথা বলে বাপ্পী(১৫) নামে এক কিশোরকে ডেকে নিয়ে কুপিয়ে হত্যা করে তার কিশোর দুই বন্ধু। আদালতে তারা১৬৪ ধারায় জবানবন্দিতে স্বীকারোক্তি।
বগুড়ার শাজাহানপুরে পাখ শিকারের কথা বলে ডেকে নিয়ে বাপ্পী( ১৫) কে তার বন্ধুরাই এলোপাতাড়ি ভাবে কুপিয়ে হত্যা করে। বাপ্পাীর ” রুক্ষ স্বভাব এর কারনে” ঘনিষ্ঠ বন্ধুরা তার ওপর ক্ষীপ্ত হয়ে এ হত্যা কান্ড ঘটিয়েছে। গ্রেফতারকৃত প্রধান দুই আসামি নুরুজ্জামান (২১)ও জিহাদ বাব(১৭) শনিবার ২ জানুয়ারি আদালতে ১৬৪ ধারায় দেয়া স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দিতে এ তথ্য জানিয়েছে।
শাজাহানপুর থানার তদন্ত কর্মকর্তা উপ- পরিদর্শক (এসআই) ছাম্মাক আলী শনিবারে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, গত ২৯ ডিসেম্বর রাতে বাপ্পীকে বাড়ির পাশে কুপিয়ে হত্যা করা হয়। পরদিন বাপ্পীর বাবা মোকছেদ আলী বাদি হয়ে থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন। নুরুজ্জামান ও জিহাদ বাবু স্বীকারোক্তিতে পুলিশের কাছে জানায়,গত ২৯ ডিসেম্বর মঙ্গলবার রাতে পাখি শিকারের কথা বলে বাড়ির পাশে শিমের মাচার কাছে বাপ্পীকে ডেকে নেয় তারা। বাপ্পী সেখানে আসলিই তারা হাসুয়া দিয়ে পিছন দিক থেকে বাপ্পীর ঘাড়ে আঘাত করে। এরপর জিহাদ বাবু তার হাতে থাকা রামদা দিয়ে বাপ্পীর মাথার পেছনের দিকে আঘাত করলে সে মাটিতে লুটিয়ে পড়ে যায়। স্হানীয়রা তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত্যু ঘোষণা করেন।
শাজাহানপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আজিমউদ্দিন জানান, বাপ্পী হত্যার মামলার প্রধান দুই আসামি নুরুজ্জামান ও জিহাদ বাবুকে গ্রেফতার করা হয়েছে। আসামিরা হত্যার দায় স্বীকার করে আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে।

এই সংবাদটি 86 বার পঠিত হয়েছে

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ